Video editing Course Free – ডিডিও এডিটিং কোর্স নিয়ে নিন ফ্রিতে।

ভিডিও এডিটিং পেইড কোর্স আপনি কি ভিডিও এডিটিং করে আয় করার বিষয়টি সম্পর্কে জানেন? হয়তো অনেকের কাছেই এই বিষয়টি স্বপ্নের মতো লাগতে পারে। কিন্তু স্বপ্ন মনে হলেও এটা সত্যি যে, আপনি চাইলে এখন ঘরে বসে ভিডিও এডিটিং করার মাধ্যমে আয় করতে পারেন। হ্যাঁ, আপনি যা শুনেছেন একদম সত্যি শুনেছেন। 

ভিডিও এডিটিং করে আয় করার জন্য আপনাকে প্রথমত ভিডিও এডিটিং কি? তা বুঝতে হবে। তাছাড়া আরো কিছু আনুসাঙ্গিক বিষয় নিয়ে ভালোভাবে জেনে নেওয়ার পাশাপাশি কিছু নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর ফোকাস করতে হবে। 
ভিডিও এডিটিং কি? কিভাবে ভিডিও এডিটিং করে আয় করা যায়? ভিডিও এডিটিং কিভাবে শিখব? আয় করার জন্য কি বিষয় মাথায় রাখতে হবে এবং কিভাবে কি করবেন এসব নিয়েই বিস্তারিত থাকছে এই আর্টিকেলে।

আরো পড়ুন:

ভিডিও এডিটিং কি? (What is Video Editing?)

ভিডিও এডিটিং হলো ভিডিও ফুটেজ বা সিনেমা তৈরির জন্য ভিডিও ক্লিপ, মিউজিক ভিডিও, চিত্র এবং শব্দগুলো একসাথে যুক্ত করার প্রক্রিয়া যা সঠিকভাবে অনুভূতিতে প্রকাশ করতে সক্ষম। অর্থাৎ কোন একটি ভিডিও ফাইলকে আকর্ষণীয় করে তোলা। 
আগেকার যুগে যখন এনালগ পদ্ধতিতে ভিডিও ধারন করা হতো তখন থেকেই ভিডিও এডিটিং এর কার্যক্রম হয়ে আসছে। তখন অবশ্য ফিল্ম রিলগুলো যুক্ত করা, কাটা, ফ্রেম মোছা ও যুক্ত করার মাঝেই সীমাবদ্ধ ছিল। আজকাল, এটি সাধারণত অভিনব ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার দিয়ে করা হয় এবং এখন এডিটিংগুলো হয় আগের থেকে আরো অনেক উন্নত এবং আকর্ষনীয়।

ভিডিও এডিটিং কেন জরুরী?

ভিডিও এডিটিং এর গুরুত্বপূর্ণ অপরিসীম। কেননা এটি চিত্র এবং শব্দের সংমিশ্রনের মূল চাবিকাঠি, যা আমাদের ইমোশনালি কানেক্টে করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ভিডিও এডিটিং করার বেস্ট সফটওয়্যার (ফ্রী এবং পেইড)

ভিডিও এডিটিং শেখার জন্য আপনি ফ্রী ভিডিও এডিটর বা পেইড ভিডিও এডিটর দুটোই ব্যবহার করতে পারবেন। তবে প্রফেশনাল ভিডিও এডিটিং করার জন্য পেইড ভিডিও এডিটর শেখার চেষ্টা করা উচিৎ। নিচে আপনাদের সুবিধার জন্য কিছু ফ্রী এবং পেইড এডিটর সম্পর্কে বর্ণনা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন -   ডিজিটাল মার্কেটিং Digital Marketing কোর্স বাংলা পেইড কোর্স ফ্রি

ফ্রী এডিটর

OpenShot/ওপেনশট

ওপেনশট একটি ফ্রী এবং ওপেন সোর্স সফটওয়্যার। ফ্রী ভিডিও এডিটিং এর জন্য ওপেনশট সব থেকে সেরা। ক্রস প্লাটফর্ম সাপোর্ট সাথে পাওয়ারফুল অ্যানিমেশন এবং বিভিন্ন ইফেক্ট দিয়ে সাজানো এই সফটওয়্যার অন্যান্যদের থেকে আলাদা।

HitFilm Express/হিটফিল্ম এক্সপ্রেস

প্রফেশনাল ভিডিও এডিটিং করতে হিটফিল্ম এক্সপ্রেস একটি আদর্শ এডিটর। এখানে 2D, 3D, ৪০০+ ভিডিও ইফেক্ট, টেক্সট, টাইটেল, ভিডিও কাটিং, অডিও এডিটিং থেকে শুরু করে অনেক ফিচার ফ্রীতে পাওয়া যায়। গ্রীনস্ক্রীন ব্যাবহার করে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার মতো প্রিমিয়াম ফিচার ফ্রী ব্যবহার করা যায়। হিটফিল্ম এক্সপ্রেস অনেক প্রফেশনাল ইউটিউবার ইউজ করে।

Shotcut/শটকাট

শটকাট একটি ওপেন সোর্স ক্রস প্লাটফর্ম ভিডিও এডিটর। ভিডিও ট্রিমিং, এডিটিং, ক্রপিং, স্ক্রীন রেকর্ডিং থেকে শুরু করে মোটামুটি ধরনের কাজ সহজেই করা যায়। ইউজার ইন্টারফেস খুব সহজে মনে রাখা যায়।

পেইড এডিটর

Adobe Premier Pro CC/অ্যাডোবি প্রিমিয়ার প্রো সিসি

প্রফেশনাল ভিডিও এডিট করতে অ্যাডোবি প্রিমিয়ার প্রো সিসি এর কোন জুড়ি নেই। ক্রিয়েটিভ ক্লাউডের অধিনে থাকা এই এডিটরের স্টক অডিও এবং ভিডিও লাইব্রেরী অনেক বড়। ৩০৬ ডিগ্রি, ৪ কে, এইচডিআর ভিডিও সাপোর্ট থেকে একটা প্রফেশনাল ভিডিও তৈরি করতে যা লাগে সব এখানে পাবেন।

মার্কেটে ভিডিও এডিটিং এর ভ্যালু কেমন এবং ভবিষ্যৎ কি?

আপনি একজন প্রফেশনাল ভিডিও এডিটর হতে পারলে কাজ নিয়ে আর চিন্তা করতে হবে না। কারন দেশের ডিজিটাল মিডিয়ায় দক্ষ ভিডিও এডিটরের চাহিদা দিন দিন বাড়ছেই। এছাড়া আপনি দেশের বাইরে অনেক অনেক টিভি চ্যানেল আছে যেখানে কাজ করতে পারবেন। প্রোডাকশন বিজনেসে দক্ষ ভিডিও এডিটরের প্রয়োজনীয়তা দিন দিন বেড়ে চলেছে। নাটক বা মুভি এডিটর হিসেবে কখনই আপনার কাজের অভাব হবে না। আপনি একজন ট্রেইনার হিসেবে কাজ করতে পারবেন। অন্যদিকে মার্কেটপ্লেসে অ্যাকাউন্ট খুলে সার্ভিস সেল দিতে পারবেন।

আরও পড়ুন -   ডাটা এন্ট্রি কি? ডাটা এন্ট্রি কোর্স। ডাটা এন্ট্রি শেখার উপায়, ডাটা এন্ট্রি জব

ভিডিও এডিটিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

ভিডিও এডিটিং অনেক দামী আর কুল প্রফেশন। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে আপনি শুরুর দিকে ১৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা বেতন পাবেন, আপনার পারফর্মেন্সের উপর নির্ভর করে ধীরে ধীরে বেতন বাড়তে থাকবে।

আর্টিকেল লিখে আয় করার ওয়েবসাইট [নতুনদের জন্য]

এছাড়া আপনি অনলাইন মার্কেটপ্লেসে সার্ভিস সেল দিতে পারবেন। ফাইভারে ভিডিও এডিটিং নিয়ে অনেক গিগ পাবেন। সে গিগ গুলোর সেল দেখলেই আপনি বুজতে পারবেন আসলে এই সেক্টর কতোটা গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া আপওয়ার্কে প্রতিদিন অনেক জব পোস্ট হয় ভিডিও এডিটিং নিয়ে। আপনি সেখানে কাজে বিড করে অনেক ভালো একটা এমাউন্ট জেনারেট করতে পারবেন।

আজকাল ইউটিউব অনেক পপুলার একটি অনলাইন ইনকাম সোর্স। আপনার ভিডিও এডিটিং স্কিল কাজে লাগিয়ে সুন্দর সুন্দর ভিডিও তৈরি করে অ্যাডসেন্স থেকে ইনকাম করতে পারবেন। ভিডিও এডিটিং একটি এভারগ্রীন স্কিল সেক্টর। এখানে কাজ শিখে আপনাকে বসে থাকতে হবে না। প্রতি মাসে ভিডিও এডিটিং করে অনেক ভালো মানের একটি ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন। আজকের লেখায় আমরা ভিডিও এডিটিং নিয়ে অনেক তথ্য জানলাম। আশাকরি আমাদের লেখা আপনার ভালো লেগেছে। কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না ধন্যবাদ।

ভিডিও এডিটিং শেখার উপায়

বর্তমানে যেকোনো বিষয় সম্পর্কে ধারনা পাওয়ার জন্য সার্চ ইঞ্জিন অর্থাৎ গুগল এবং অন্যদিকে ইউটিউব হচ্ছে সেরা প্ল্যাটফর্ম। গুগলে সার্চ করলে যেকোনো জিনিস আমরা সহজেই পেয়ে যায় আর অন্যদিকে ইউটিউবে যেকোনো টিউটোরিয়াল অনেক সহজে আমরা পেতে পারি।
ভিডিও এডিট শিখুন গুগল মামা এবং ইউটিউব মামাকে কাজে লাগিয়ে। এখানে ভিডিও এডিটিং নিয়ে অসংখ্য ফ্রি টিউটোরিয়াল পেয়ে যাবেন। এছাড়াও অসংখ্য অনলাইন কোর্স করার সাইট এ ফ্রি ও পেইড কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি কিছু টাকা খরচ করে ভিডিও এডিটিং পুরোপুরি ভাবে শিখে নিতে পারবেন। তবে আমাদের দেশের বেশিরভাগ কোম্পানির শেখানোর ক্ষেত্রে অনেক বেশি ব্যবহার করে থাকে। তাই আমার ব্যক্তিগত মতে, আপনার মধ্যে যদি রিসার্চ করার ক্ষমতা থাকে তাহলে আপনি এটা খুব সহজে শিখতে পারবেন। 
প্রফেশনাল মানের একজন ভিডিও এডিটর হওয়ার সবচেয়ে প্রধান উপায় হচ্ছে- প্রাকটিস। নিশ্চয়ই শুনেছেন, Practice Make A Man Perfect. যেকোনো জিনিস শিখতে এবং দক্ষতা অর্জন করতে হলে প্রাকটিস এর কোনো বিকল্প নেই। নিয়মিত চর্চা করলে যে কোন কঠিন অসাধ্যকে সাধন করা সম্ভব। এর মাধ্যমে আপনি অতি দ্রুতই ভিডিও এডিট করা শিখে ফেলতে পারবেন।

আরও পড়ুন -   ২৪ ঘন্টায় কোরআন শিখি কোর্স ফ্রি ডাউনলোড - 24 ghontay Quran Shikhi Course Free Download

ভিডিও এডিটিং পেইড কোর্স

ভিডিও এডিটিং শিখতে চাইলে এই পেট করি আপনি কাজে লাগাতে পারেন।  এবং এটা যদি সম্পূর্ণ ভিডিও এডিটিং শিখতে চান তবে এই কোর্সটি আপনাকে পুরোপুরি ভাবে সহায়তা করবে।  তাই যারা টেনশন  করছেন যে কিভাবে ভিডিও এডিটিং শিখবেন ভেবে পাচ্ছেন না। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ নিচ্ছেন কেউ  ফ্রিতে ভিডিও এডিটিং শেখাচ্ছে ন। এইকোর্সটি  করার পর আপনার ভিডিও এডিটিং শিখতে পারবেন।  তাই যদি আপনার এই কোর্সটি ভালো লাগে তবে অবশ্যই এই পোস্টটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে শেয়ার করবেন ধন্যবাদ।

নিচে দেওয়া ডাউনলোড লিঙ্ক থেকে করছি এখনই ডাউনলোড করে নিন।

ডাউনলোড এখানে

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ার মাধ্যমে ভিডিও এডিটিং সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে এবং বুঝতে পারলাম। আশা করি, আজকের টপিকটি পড়ে সবাই একটু হলেও উপকৃত হয়েছেন। 
আজকের টপিক সম্পর্কে যদি আপনার কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকে, তাহলে আপনার মতামতটি নিচের কমেন্ট বক্সে আমাদেরকে জানাতে পারেন। আপনাদের মতামত সবসময়ই আমাদের কাছে অতি মূল্যবান। ধন্যবাদ 

About বিডি স্কিল

View all posts by বিডি স্কিল →