গ্রাফিক্স ডিজাইন পেইড কোর্স ফ্রি – Graphics Design Paid Course Free

আপনারা যারা গ্রাফিক্স ডিজাইন পেইড কোর্স ফ্রি তে চান তাদের জন্য আমরা নিয়ে এলাম Programming Point এর গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রিমিয়াম কোর্স টি।

ওয়ার্নিংঃ আমরা সাধারণত পেইড কোর্স শেয়ার করে থাকি তাদের জন্য যাদের পেইড কোর্স কেনার সামর্থ্য থাকে না। আপনার যদি পেইড কোর্স কেনার মত সামর্থ্য থাকে তবে অবশ্যই তাদের ওয়েবসাইট থেকে পেইড কোর্সটি কিনে তারপর করবেন। ধন্যবাদ

বর্তমানে গ্রাফিক্স ডিজাইন অনেক বেশি প্রচলিত। গ্রাফিক্স ডিজাইনটি আপওয়ার্কের সর্বাধিক ডিমান্ড অনুযায়ী দক্ষতার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। গ্রাফিক্স ডিজাইন করে এখন অনেকে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে। অন্যান্য বিভিন্ন কাজ গ্রাফিক্স ডিজাইন করে অনেক বেশি ইনকাম করা যায়। এখানে কাজ করে প্রতি ঘন্টায় প্রায় ৩৬ ডলারের মত ইনকাম করা যায়। এই প্রফেশনাল (professional) কোর্স করতে পারলে চাকরির অনেক সুযোগ রয়েছে।
বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের organization বা কোম্পানি রয়েছে যেগুলোতে গ্রাফিক্স ডিজাইনার প্রয়োজন হয়।তেমনি কিছু কোম্পানি হলো-

  • ওয়েব ডিজাইনিং কোম্পানি
  • Advertising কোম্পানি
  • মার্কেটিং কোম্পানি
  • Game development কোম্পানি
  • Application development কোম্পানি
  • বিভিন্ন national কোম্পানি
  • Multinational কোম্পানি ইত্যাদি।

পৃথিবীতে এখন গ্রাফিক্স ডিজাইনের যে পরিমাণ চাহিদা রয়েছে তার তুলনায় অনেক কম সংখ্যাক লোকেরা গ্রাফিক্স ডিজাইনিং কোর্স করে ক্যারিয়ার বানানোর কথা ভাবে। এজন্য এ ক্ষেত্রে কাজ করা লোকের চাহিদা দিন দিন অনেক বেড়ে যাচ্ছে। এ চাকরিতে (job) মাইনে বা স্যালারি অনেক বেশি।
আপনি যদি ভবিষ্যতে গ্রাফিক্স ডিজাইন করে অধিক ইনকাম করতে চান তবে আপনিও একটি প্রফেশনাল কোর্স (Professional Course) করে নিতে পারেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কী? (What is Graphics Design)

গ্রাফিক শব্দটি জার্মান শব্দ থেকে এসেছে। গ্রাফিক শব্দটির অর্থ হচ্ছে চিত্র, ড্রইং বা রেখা (আঁকা)। আর ডিজাইন শব্দের অর্থ নকশা বা পরিকল্পনা। অর্থাৎ, চিত্র দ্বারা নকশা তৈরি করায় হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন।
মোটকথা, গ্রাফিক ডিজাইন হ’ল টাইপোগ্রাফি, ফটোগ্রাফি, আইকনোগ্রাফি এবং চিত্রের ব্যবহারের মাধ্যমে ভিজ্যুয়াল যোগাযোগ এবং সমস্যা সমাধানের প্রক্রিয়া
এক কথায় , গ্রাফিক ডিজাইন হলো, নিজস্ব ধারণা, শিল্প (art) এবং দক্ষতা (skills) ব্যবহার করে ছবি (pictures), শব্দ (words), পাঠ (text) এবং ধারণার মিশ্রণ (combine) করে একটি ভিন্ন এবং নতুন ছবি (picture) বানানো।
এ তৈরিকৃত নতুন ছবি বা গ্রাফিক্স বিভিন্ন এডভার্টিজমেন্ট, ম্যাগাজিন, বই, ওয়েবসাইট, ক্যালেন্ডার, ব্যবসা কার্ড, কার্টুন, পোস্টার, টি-শার্ট ইত্যাদি সাজানোর জন্য বা ডিজাইন করার জন্য ব্যবহার করা হয়।
গ্রাফিক ডিজাইনারগণ কম্পিউটার সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে বা হাতে কলমে ভিজ্যুয়াল ধারণা তৈরি করে যা ভোক্তাদের অনুপ্রেরণা দেয়, অবহিত করে এবং মোহিত করে। তারা বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন যেমন- বিজ্ঞাপন, ব্রোশিওর, ম্যাগাজিন এবং কর্পোরেট প্রতিবেদনের সামগ্রিক বিন্যাস এবং উৎপাদন নকশা ডেভেলপ করে।
Graphics design এর কাজ দুভাবে করা যায়। যথা –

  • নিজ হাত দিয়ে।
  • কম্পিউটার সফটওয়্যার (Computer Software) ব্যবহার করে।
আরও পড়ুন -   ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন 10 MINUTES SCHOOL এর ফেসবুক মার্কেটিং কোর্স।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি বা কাকে বলে বলে? আশা করি সেটা বুঝতে পেরেছেন। এবার এ বিষয় নিয়ে আরও কিছুটা জেনে নিন।

আপনার জন্য  আরো  

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত আনুমানিক কত সময় লাগে?

গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে কত সময় লাগে? এটি সম্পূর্ণরূপে আপনার পোস্ট -শিক্ষার ক্যারিয়ারের লক্ষ্যগুলি কেমন তার উপর নির্ভর করে।গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা সহজ কোন বিষয় নয়। যদি আপনি কোন কলেজ থেকে Graphic Designing এর Bachelor Degree Course করেন তবে ৩-৪ বছর সময় লেগে যাবে।সঠিক ভাবে সবকিছু ভালোভাবে শেখার জন্য Bachelor Degree করাটায় উত্তম।
গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে ডিগ্রি করতে পারলে আপনি ৪ বছরের একটি Degree Certificate পাবেন। যা যেকোনো কোম্পানিতে চাকরি পাওয়ার সুযোগ বাড়িয়ে দিবে।
নিজেকে আরও বেশি Expert এবং Professional বানিয়ে নিতে আপনি Bachelor Degree করার পর, গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে মাস্টার ডিগ্রী (Master Degree) করে নিতে পারবেন। আপনার Master in Graphics Design কোর্স করতে ২ বছর সময় লাগবে।
এছাড়া, আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনের ডিপ্লোমা কোর্স করতে চান তাহলে ৬-৮ মাস সময় লাগবে।
গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখার জন্য বিভিন্ন ধরনের Institute বা Education Center রয়েছে। যেখানে আপনারা এর উপর ডিপ্লোমা কোর্স করতে পারবেন। একেক Institute এ শেখানোর সময় ভিন্ন ভিন্ন।
তবে, গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে হলে মিনিমাম ব্যাচেলর ডিগ্রী (bachelor degree) করলে ৩ – ৪ বছর, ব্যাচেলর ডিগ্রী শেষ করে মাস্টার ডিগ্রী করলে ২ বছর এবং ডিপ্লোমা কোর্স করলে আরও প্রায় ১ বছর সময় লাগবে।
এছাড়া, গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার সময় আপনার ইচ্ছের উপর নির্ভর করবে। Practice এবং যত তারাতাড়ি আপনি বিষয়টি বুঝে শিখতে পারবেন তত তারাতাড়ি শেষ হবে।

আরও পড়ুন -   [🔥Free Paid Course🔥 ] ঘরে বসে Freelancing কোর্স ফ্রি ডাউনলোড

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কি কি প্রয়োজন?

এমনিতে, একটি গ্রাফিক্স ডিজাইন পেইড কোর্স করে যে কেও করতে পারেন। কিন্তু, এই বিষয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রী (bachelor degree) করার জন্য, আপনার আগেই কিছু সাধারণ শিক্ষার প্রয়োজন হতে পারে।
১. প্রথম প্রয়োজনীয়তা : গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এ ক্যারিয়ার বানানোর জন্য, আপনার মিনিমাম এসএসসি/এইচএসসি পাস হতে হবে।কারণ গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে ডিগ্রী কোর্স করার জন্য এইচএসসি সার্টিফিকেট (Certificate) জমা দিতে হয়। সবচেয়ে সুুুবিধা হচ্ছে আপনি (Science, Arts, Commerce) যে বিষয় নিয়েই পড়াশোনা করেন না কেন আপনি গ্রাাাফিক্স ডিজাইন করতে পারবেন।
২. সাধারণ জ্ঞান : গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে ক্যারিয়ার বানানোর জন্য আপনার communication skills, creativity এবং drawing এর জ্ঞান থাকতে হবে।
কারণ অনেক বিখ্যাত কলেজ বা Institutes রয়েছে, যেখানে Admission পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ভাইবা দিতে হয়। সেখানে আপনাকে অঙ্কন (drawing) এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনের অন্যান্য দক্ষতা এবং জ্ঞানের উপর প্রশ্ন করা হবে।
তাই গ্রাফিক্স ডিজাইন এ ক্যারিয়ার বানাতে চাইলে এই ধরণের সাধারণ জ্ঞান থাকাটা অনেক উপকারী।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কেন শিখবেন?

যেসব কারণে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা উচিত তার কয়েকটি হলো-

  • ফ্রিলান্সিং এবং আউটসোর্সিং করা যায়।
  • ডিজাইন বিক্রি করে ইনকাম করা যায়
  • স্বাধীনতা
  • চাকরি করার সুযোগ
  • উচ্চ চাহিদা
  • কাজের ক্ষেত্র বেশি
  • আয়ের পরিমাণ বেশি
  • নিজের প্রতিভা বিকাশ
  • শিক্ষক হিসেবে কাজ করার সুযোগ
  • উচ্চ শিক্ষার প্রয়োজন নেই ইত্যাদি।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে গেলে যে বিশেষ সফটওয়্যার গুলো প্রয়োজন তা নিম্নে দেওয়া হল:

  1. Adobe Photoshop
  2. Adobe Illustrator
  3. CorelDraw Graphics Suite X5
  4. Adobe In design
  5. Adobe Flash
  6. Corel Paint Shop Photo Pro X3 ইত্যাদি।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে যে জিনিসগুলো আগে জানতে হবে-

  • টুলবক্সের যাবতীয় টুল গুলোর কাজ।
  • বিভিন্ন ধরনের প্যালেট গুলোর ব্যবহার।
  • কাস্টমাইজড ইলাস্ট্রেটর
  • ডকুমেন্ট সেটআপ
  • ফ্রিফারেন্স সেট করা
  • ফন্ট
  • ফিল্টারিং
  • কালার ম্যানেজমেন্ট
  • সাইজ
  • ফরমেট
  • রেজলুশন
  • ফোরগ্রাউন্ড
  • ব্যাকগ্রউন্ড ইত্যাদি।
আরও পড়ুন -   ডিজিটাল মার্কেটিং Digital Marketing কোর্স বাংলা পেইড কোর্স ফ্রি

গ্রাফিক্স ডিজাইন ক্যরিয়ার এ চাকরির সুযোগ কেমন?

Graphic design নিয়ে ডিগ্রী (degree) শেষ করার পর এবং এ সম্পর্কে দক্ষতা ও জ্ঞান নেওয়ার পর, আপনার জন্য অনেক চাকরির সুযোগ আসবে। যেগুলো আপনি অনলাইন অফলাইন যেকোনো মাধ্যমে করতে পারবেন। তেমনি কিছু হল –

  • Logo designer হিসেবে।
  • নানাধরণের advertisement company তে।
  • Web designer হিসেবে।
  • Digital marketing agency তে।
  • Magazine এবং news paper কোম্পানির থেকে।
  • Application and game development কোম্পানি।
  • Media publishing কোম্পানি।
  • Brand identity designer.
  • Animation designer.
  • যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ডিজাইনার হিসেবে।
  • ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এ
  • নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে
  • প্রিন্টিং এবং ডিজাইনিং প্রতিষ্ঠানে
  • ওয়েব ডেভেলপিং প্রতিষ্ঠানে ইত্যাদি।

এছাড়া আরো অনেক অনেক কোম্পানি এবং ভাগ রয়েছে যেগুলিতে আপনারা গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন পেইড কোর্স

তাই গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে বিস্তারিত শিখতে প্রয়োজন একটি ফ্রি কোর্স এবং পর্যাপ্ত রিসোর্স। আমরা আপনাদের কাছে নিয়ে আসছি একটি ফ্রি প্রিমিয়াম কোর্স যা আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে সাহায্য করবে। তাই নিচে দেয়া লিংক থেকে এখনি ডাউনলোড করে নিন

Download Now

আরও পড়ুন  

 

About বিডি স্কিল

View all posts by বিডি স্কিল →